শিরোনাম
ইংল্যান্ডকে কাঁদিয়ে ইউরো চ্যাম্পিয়ন স্পেন *** কোটা আন্দোলনকারীদের বিক্ষোভে ছাত্রলীগের হামলা *** বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেক দল, অস্ট্রেলিয়া শাখার উদ্যোগে ঈদ পুনর্মিলনী ও পরিচিতি সভা *** অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় কোরআন প্রতিযোগিতা ২০২৪ সুসম্পন্ন *** সাদি মহম্মদের স্মরণে অমিয়া মতিনের একক সঙ্গীত সন্ধ্যা “তুমি রবে নীরবে” ***




↠প্রেস বিজ্ঞপ্তি


১ জুন, ২০২৪

প্রবাস › রাজনীতি

মন্তব্য:০

News Picture

চিত্র:1| |ক্রেডিট : 2

শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪৩তম শাহাদাৎবার্ষিকী পালন করেছে বিএনপি অস্ট্রেলিয়া

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪৩তম শাহাদাৎবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা ও দোয়ার অনুষ্ঠান ৩১শে শুক্রবার ২০২৪ সিডনির লাকেম্বাস্থ ইউনাইটেড হলে বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার উদোগে অনুষ্ঠিত হয়। ৪৩তম শাহাদাৎবার্ষিকী পালন কমিটির আহ্ববায়ক প্রফেসর ডক্টর হুমায়ের চৌধুরী রানার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্যে রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির অন্যতম সদস্য বেগম সেলিমা রহমান,বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্যে রাখেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান জনাব শামসুজ্জামান দুদু,বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। ৪৩তম শাহাদাৎবার্ষিকী পালন কমিটির সদস্য সচিব ইন্জিনিয়ার হাবিব রহমান এবং মোঃআবুল হাছান ওএএনএম মাসুমের পরিচালনায় বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার নেতৃবৃন্দের মধ্যে বক্তব্যে রাখেন প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এনামুল হক ভূইয়া,সাবেক সভাপতি মনিরুল হক জর্জ(ভার্সুয়াল), সাবেক সিনিয়র যুগ্ম আহ্ববায়ক মোঃমোসলেহ উদ্দিন হাওলাদার আরিফ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলী স্বপন,সাবেক সহ সভাপতি রুহুল আহম্মেদ সওদাগর,সাবেক কোষাধ্যক্ষ এডভোকেট নাসির উল্লাহ,বিএনপি নেতা প্রকৌশলী সোহেল ইকবাল মাহমুদ,একেএম ফজলুল হক শফিক,এসএম নিগার এলাহী চৌধুরী,হাবিব মোহাম্মদ জকি,স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সভাপতি তারেক উল ইসলাম তারেক,জাসাসের আব্দুস সামাদ শিবলু,যুবদলের ইন্জিনিয়ার মিনহাজ উদ্দিন প্রমুখ। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন ডাঃআব্দুল ওহাব বকুল, খাইরুল কবির পিন্টু, মোহাম্মদ ফরিদ মিয়া, স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্ববায়ক এসএম খালেদ,অয়েস্টান অস্ট্রেলিয়া থেকে সাইদুল ইসলাম মন্টু,মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, মোহাম্মদ জাকির হোসেন রাজু,আশরাফুল আলম নাহিদ,মোহাম্মদ কুদ্দুসুর রহমান,মোহাম্মদ নাসির আহম্মেদ,নাজনিন খানম, লিন্টাস পেরেরা,আরমান হোসেন ভূইয়া ,অসিত গোমেজ,আব্দুস সাওার, এডভোকেট মমিন আহম্মেদ সুধন যোসেফ ক্রুশ,জাহিদ আবেদীন,আবুল কাশেম, মোহাম্মদ বাচ্চু ,এডভোকেট মমিন আহম্মেদ,নাসির উদ্দিন বাবুল,মোহাম্মদ আবু সাঈদ কুদরী,আব্দুল করিম, লিন্টাস পেরেরা ,সোহেল পালমা,এলভিস কস্তা,এলবার্ট রোজারিও,এম এইউছুফ,মোমিন মোল্লা,গোলাম মোস্তাফা সহ অসংখ্য নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত এবং শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফেরাত ও বেগম খালেদা জিয়া এবং দেশনায়ক তারেক রহমানের শারিরিক সুস্থতা কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করেন মাওলানা ফেরদৌস আহম্মেদ। অতিথি বৃন্দ তাদের বক্তব্যে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের রাজনৈতিক জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জনাব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, জিয়াউর রহমানের জন্ম না হলে বাংলাদেশ কবে স্বাধীনত হতো কেউ জানেনা।আর এই আওয়ামীলীগ রাজনীতি করার সুযোগ পেয়েছিলেন উনার শাসন আমলে বহুদলীয় গণতন্ত্রের মাধ্যমে। প্রধান অতিথির বক্তব্যে বেগম সেলিমা রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী প্রায়ই বলেন-যুদ্ধের সময় খালেদা জিয়া কোথায় ছিলেন? জিয়াউর রহমান সম্মুখ যোদ্ধার অপরাধে দুই শিশু সন্তানসহ বন্দি রাখা হয় খালেদা জিয়াকে। আর আপনি প্রধানমন্ত্রী সে সময় কোথায় ছিলেন? যাদের কোনো অবদান নেই তারাই এগুলো বলতে পারেন। স্বাধীনতা যুদ্ধ থেকে শুরু করে বহুদলীয় গণতন্ত্র সবই তো জিয়া পরিবারের অবদান। সভাপতির বক্তব্যে ডক্টর হুমায়ের চৌধুরী রানা বলেন, বিএনপিকে শেষ করতে দেশি-বিদেশী ষড়যন্ত্রে জিয়াউর রহমানকে হত্যা করা হয়। কিন্তু যারা ভেবেছিল জিয়াউর রহমানকে হত্যার মধ্যদিয়ে বিএনপি শেষ হয়ে যাবে, তাদের মুখে চুনকালি মেখে দিয়ে বেগম খালেদা জিয়া গৃহবধূ থেকে রাজনীতিতে নেমে এসেছিলেন। তার নেতৃত্ব বিএনপি দেশে পুনরায় সংসদীয় গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠা হয়েছিল। অনুষ্ঠানে ভার্সুয়ালি ওয়েস্টান অস্ট্রেলিয়া বিএনপির নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাসুদ আকন্দ ,ইন্জিনিয়ার মোস্তাফিজ আল মামুন এবং শ্রাবন আহম্মেদ ।

News Picture

image : 2 | credit : 2


News Picture

image : 2 | credit : 2






মন্তব্য